কুমিল্লার ভাড়া বাসায় মিললো নাঙ্গলকোটের যুবকের মরদেহ

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি: কেনাকাটার পর্ব শেষ। বৃহস্পতিবার গায়েহলুদ, শুক্রবার বিয়ে। কিন্তু বিয়ে করা আর হলো না। ভাড়া বাসার শয়নকক্ষে মিলেছে সেই বরের মরদেহ।

কুমিল্লা নগরীর নানুয়ার দিঘীরপার এলাকার একটি ভবন থেকে বুধবার রাত ১১টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

মৃত যুবকের নাম মুজিবুর রহমান স্বপন। তার বাড়ি জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার আশারকোটা গ্রামে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, স্বপন ওই বাসার তিন তলায় ভাড়া থাকতেন। আগামী শুক্রবার তার বিয়ে। বুধবার দুপুর থেকে তাকে মোবাইলে না পেয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। পরে তার বাসায় এসে দরজা বন্ধ দেখতে পান। ডাকাডাকিতে সাড়া না দেয়ায় পুলিশকে খবর দেন তারা। পুলিশ এসে দরজা ভেঙে বিছানায় দেখতে পায় মরদেহ। রুমে চলছিল টিভি।

মুজিবর রহমানের ভাই মোবারক জানান, আগে তার ভাইয়ের দুবার বিয়ে হয়েছিল। প্রথমটি ডিভোর্স হয়েছিল। দ্বিতীয় স্ত্রী মারা যান। শুক্রবার তৃতীয় বিয়ে হওয়ার কথা ছিল তার ভাইয়ের।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বখতিয়ার উদ্দিন বলেন, ‘মরদেহে কোনো আঘাতের চিহ্ন না থাকলেও, মুখ থেকে কিছু রক্ত বের হয়েছিল। পরিবার দাবি করছে তিনি স্ট্রোক করেছেন। তবে এটি স্বাভাবিক মৃত্যু কি না, আমরা নিশ্চিত হতে পারিনি। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানানো হবে।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *