নাঙ্গলকোটে ইভটিজিংয়ের অভিযোগে বখাটের ৬ মাসের কারাদন্ড

স্টাফ রিপোর্টার, নাঙ্গলকোট : কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার ঢালুয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে ইভটিজিং করার ঘটনায় ছাত্রীর মায়ের লিখিত অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লামইয়া সাইফুল পুলিশ পাঠিয়ে এক বখাটেকে গ্রেপ্তার করে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ওই বখাটেকে ৬ মাসের জেল প্রদান করেন।

বখাটে উপজেলার ঢালুয়া ইউনিয়নের বায়েরা গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে দেলোয়ার হোসেন রাসেল (২৩)।
পুলিশ জানায়, উপজেলার ঢালুয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে বিদ্যালয়ে আসা যাওয়ার পথে বখাটে রাসেল প্রায়ই উত্তক্ত করতো। ঘটনাটি বায়রা গ্রামের সমাজপতিদের জানালে বখাটে আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে। শনিবার রাত ১০টার দিকে শিক্ষার্থী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাহিরে বের হলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা বখাটে শিক্ষার্থীর গায়ে হাত দিলে শিক্ষার্থী চিৎকার করেন। পরে বখাটে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় শিক্ষার্থীর মা উপজেলা নির্বাহী অফিসার লামইয়া সাইফুলের নিকট লিখিত অভিযোগ করেন। রোববার নাঙ্গলকোট থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন খন্দকার সঙ্গীয় ফৌর্সসহ রাসেলকে আটক করে।

নাঙ্গলকোট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লামইয়া সাইফুল বলেন, অভিযুক্ত ঘটনার সত্যতা স্বীকার করায় তাকে ৬ মাসের জেল প্রদান করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *